শিরোনাম :
ঢাকার বায়ুদূষণ রোধে ৯ দফা নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলছে হাইকোর্ট দুদকের হাতে গোল্ডেন মনিরের অঢেল সম্পদের তথ্য করোনার টিকা আমদানির পর বিতরণ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী করোনায় একদিনে আরো ৩২ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ২,২৩৯ রাজধানীর মোহাম্মদপুরে জেনেভা ক্যাম্প বস্তিতে আগুন মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে মাঠে ডিএনসিসির মোবাইল কোর্ট শুধু অবকাঠামো নির্মাণ নয়, রক্ষণাবেক্ষণ আরো বেশি জরুরী: এলজিআরডি মন্ত্রী নতুন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান শপথ নিলেন ডিএনসিসি মেয়রের সাথে ভারতের রাষ্ট্রদূতের ভার্চুয়াল বৈঠক খালেদার নাইকো দুনীতি মামলার চার্জ গঠনের শুনানি ৫ জানুয়ারি নতুন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান, সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে শপথ রাতের আধারে পুড়েছে মহাখালির ৭ তলা বস্তি করোনায় মারা গেলেন সংবাদের সম্পাদক মুনির সাংবাদিক জিলানী মিলটন করোনায় আক্রান্ত, তার মায়ের মৃত্যুতে সাংবাদিকদের শোক রাঙ্গামাটিতে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে দুদকের অভিযান সাংবাদিক জিলানী মিলটনের মায়ের মৃত্যুতে ক্র্যাবের শোক বিদেশে অর্থপাচারের মামলায় খালেদ মাহমুদ ভূইয়ার বিরুদ্ধে দুদকের চার্জশিট অর্থপাচার চক্রের সদস্য বাবুলের ৩৪ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ করোনায় একদিনে ৩৮ জনের মৃত্যু,নতুন আক্রান্ত ২০৬০ সাবেক ফুটবলার বাদল রায়ের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক
বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন

এখনো উদঘাটিত হয়নি রাজশাহীর দামকুড়ায় গৃহবধু সুফিয়া বেগম খুনের আসল রহস্য

বিশেষ প্রতিবেদক, দূরবীণ নিউজ:
গত ১৪ দিনেও উদঘাটিত হয়নি রাজশাহীর দামকুড়া থানার টেংরামারী গ্রামের সরল মনা নিরীহ গৃহবধু মোসা. সুফিয়া বেগম (৪৫) নি:সংশ খুনের আসল রহস্য। পবিত্র রমজান মাসে গত ১৯ মে দিবাগত রাতে অত্যন্ত পরিকল্পিত ভাবে ঠান্ডা মাথায় সংঘবদ্ধ অপরাধীরা নির্মমভাবে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গৃহবধু মোসা. সুফিয়া বেগমকে জবাই করে পালিয়ে যায়।

জানা যায়, রাজশাহী মহনগরীর দামকুড়া থানার, টেংরামারী গ্রামে নিজ বাড়িতে খুনের শিকার হয়েছেন গৃহবধু সুফিয়া বেগম। এই ঘটনায় পরদিন ২০ মে নিহতের স্বামী মো. আনিসুর রহমান (৫৫) বাদী হয়ে রাজশাহীর দামকুড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নম্বর- ৯, ধারা ৩০২ , পেনাল কোড-১৮৬০, তারিখ- ২০/০৫/২০২০।

বাদী মো. আনিসুর রহমান মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন, রাজশাহীর দামকুড়া থানার, টেংরামারী গ্রামে নিজ বাড়িতে চার ছেলে ও স্ত্রী সুফিয়া বেগমকে নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বসবাস করে আসছেন। গত ১৯ মে রাতে তিনি বাড়ির পাশে মসজিদে এশা ও তারাবিহ নামাজ পড়তে যান। মসজিদে যাবার আগে তার বাড়িতে বাদীর স্ত্রী মোসা. সুফিয়া বেগম, মেজো ছেলে মো. সাদিকুর রহমান (২৪) এবং পাশের বাড়ির প্রতিবেশি মোসা. সাথি খাতুন (২৮) ও সাথি খাতুনের ছেলে মো. জাহিদকে (৮) দেখে যান। এর কিছুক্ষণ পর তার মেজো ছেলে মো. সাদিকুর রহমানও মসজিদে নামাজ পড়তে চলে যান।

ছবিতে- নিহত গৃহবধু মোসা. সুফিয়া বেগমের সাথে তার দুই ছেলে

তিনি মসজিদে নামাজ আদায় শেষে রাত সোয়া ৯ টায় বাসায় ফিরে আসেন। বাসায় ফিরে তিনি স্ত্রী সুফিয়া বেগমকে খুঁজতে থাকেন এবং ডাকা ডাকি করতে থাকেন। কিন্তু কোনো সাড়া না পেয়ে, তিনি বাড়ির দক্ষিণে টিনের শয়ন কক্ষের দিকে এগিয়ে যান এবং দেখেন ঘরের লাইট বন্ধ। তিনি ওই টিনের ঘরে ঢুকে লাইট জ্বালান, সাথে সাথে দেখতে পান কাঠের চৌকির ওপর তার স্ত্রী সুফিয়া বেগমের রক্তাক্ত মৃত দেহ পড়ে রয়েছে। তার স্ত্রীর গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করার চিহ্ন এবং পুরো শরীর রক্তাক্ত দেখতে পান।

পরে বাদী মো. আনিসুর রহমান দৌড়ে পাশের মসজিদে ছুটে যান এবং তার মেজো, সেজো ও ছোট ছেলেকে ডেকে এই খুনের ঘটনাটি জানান। এরপর তিনি মোবাইলে রাজশাহী মহনগরীর দামকুড়া থানা পুলিশকে তার স্ত্রী সুফিয়া বেগমের নি:সংশ খুনের বিষয়টি জানান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।

বাদী আরজিতে আরো উল্লেখ করেন, তার প্রতিবেশি ১. মো. স্মরন আলী (৩২), পিতা- মো. আনারুল হক; ২. মোসা: সাথি খাতুন (২৮), স্বামী- মো. মিলন এবং আরো অজ্ঞাত নামা আসামিরা গত ১৯ মে রাত আনুমানিক সাড়ে ৮ টা থেকে রাত সোয়া ৯ টার মধ্যে পরিকল্পিতভাবে স্ত্রী সুফিয়া বেগমকে বাসায় একা পেয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে জবাই করে হত্যা করেছে।

বাদীর সন্দেহ হচ্ছে, প্রতিবেশিদের সাথে আগে থেকেই চলে আসা পারিবারিক কলহ এবং জমি জমা সংক্রান্ত বিরোধের কারণেই হয়তবা এই খুনের ঘটনাটি ঘটেছে। আর ওই বিরোধের জের ধরেই বাসায় একা পেয়ে পরিকল্পিতভাবে খুন করে অপরাধীরা।

এই মামলায় সাক্ষী  করা হয়েছে, ১. মো. কামাল উদ্দিন (৩৫), পিতা- মো. মাহাতাব উদ্দিন; ২. মো. আরিফুল ইসলাম কাজল (৪২), পিতা- মৃত. নজর আলী; ৩. মো. মামুনুর রশিদ (৪২ ), পিতা- মৃত আজিজুল হক; ৪. মো. সাদিকুর রহমান (২৪), পিতা- মো. আনিসুর রহমান। সবার ঠিকানা দামকুড়া থানার ,টেংরামারী গ্রামে।

কিন্তু এতাদিন পরও পুলিশ এই খুনের প্রকৃত রহস্য উদঘাটন করা কিংবা প্রকৃত আসামিদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে পারেনি বলে জানান ক্ষতিগ্রস্ত ওই পরিবারের সদস্যরা। তারা এই মামলার ভবিষ্যৎ নিয়েও নানা উদ্বেগ উৎকণ্ঠার মধ্যে রয়েছেন। এ ব্যাপারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পুলিশের আইজিসহ সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন পুলিশ কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে এই অসহায় পরিবারের সদস্যরা। # কাশেম

 


আপনার মতামত লিখুন :

2 responses to “এখনো উদঘাটিত হয়নি রাজশাহীর দামকুড়ায় গৃহবধু সুফিয়া বেগম খুনের আসল রহস্য”

  1. থানার বক্তব্য দিলে নিউ্জের গুরুত্ব বাড়তো।

  2. Iqbal Hossain says:

    দ্রুত তদন্তের মাধ্যমে আসামিদের গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি, নাহলে আইন শৃঙ্খলার প্রতি সাধারণ মানুষের আস্থার সংকট সৃষ্টি হবে এবং বিচারহীনতার কারণে খুনিরা হয়ত আরও কোন নিরীহ মানুষের প্রাণ নাশের কারণ হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অনুসন্ধান

করোনা আপডেট

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৪৫০,৬৪৩
সুস্থ
৩৬৪,৯১৬
মৃত্যু
৬,৪২০
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
৫৯,১৬২,৭৪৪
সুস্থ
৩৭,৮৮৯,০৮৩
মৃত্যু
১,৩৯৬,২৬৭

.