সর্বশেষঃ
যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা ফেললে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে:. মেয়র আতিকুল ইসলাম ফেব্রুয়ারিতে বুড়িগঙ্গা আদি চ্যানেলের পুনঃখনন কাজ শুরু হবে : মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস ‘স্থানীয় সরকার দিবস’ পালনের উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ১৭৬ কোটি টাকা আত্মসাৎ মামলায় এবি ব্যাংকের কর্মকর্তাসহ ১৫ জনকে ৭ দিনের মধ্যে গ্রেফতারে নির্দেশ আমরা কেউ বসে থাকতে পারি না‘ অর্থপাচারের শুনানিতে হাইকোর্ট তিতাস গ্যাসের আয়েজ উদ্দিনও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের মামলা নাহিদ এন্টারপ্রাইজের বিরুদ্ধে ২৭৫ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকির মামলা অবৈধ দখলদারদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে: মেয়র আতিকুল ইসলাম ডিএনসিসি মেয়র’স কাপ-২০২১ মাদক বিরোধী ভূমিকা পালন করবে: আতিকুল ইসলাম খুব শিগগিরই মন্ত্রী পরিষদে জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক নীতিমালা উত্থাপন: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী
বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:০৭ পূর্বাহ্ন

২৬ হাজার কোটি টাকা বিদেশি কর্মীদের বেতন-ভাতায় পাচার হচ্ছে : টিআইবি

দূরবীণ নিউজ প্রতিবেদক:
বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর বিদেশি কর্মীদের বেতন-ভাতার নামে ২৬ হাজার কোটি টাকা পাচার হয়। আর বাংলাদেশে আড়াই লাখ বিদেশি কর্মী কাজ করেন।

বিদেশি এসব লোকজন পর্যটক ভিসায় এসে কাজ করেন ১ লাখ ৬০ হাজার কর্মী। এসব বিদেশ কর্মী প্রায় ১২ হাজার কোটি টাকার রাজস্ব ফাঁকি দেয়। তবে অবাক হবার খবর হচ্ছে প্রায় সোয়া চার হাজার থেকে সাড়ে আট হাজার টাকা ঘুষ দিতে হয় বিদেশে বাংলাদেশি মিশনে।

বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) প্রকাশিত ‘বাংলাদেশে বিদেশিদের কর্মসংস্থান: সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক এক গবেষণায় এই চিত্র উঠে এসেছে।

গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশ উপলক্ষে ধানমন্ডির টিআইবি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। গবেষণার ফলাফল তুলে ধরেন টিআইবির কর্মসূচি ব্যবস্থাপক মনজুর ই খোদা।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান বলেন, বিদেশি বিনিয়োগের প্রয়োজনে এ দেশে বিদেশি কর্মী প্রয়োজন। এ জন্য ভিসা, কর্মানুমতি, বেতন কাঠামো ঠিক করা হয়েছে। কিন্তু এসব নিয়মনীতি পরিপালনে চর্চার অভাব আছে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে আইন লঙ্ঘিত হয়েছে।

নিয়োগকর্তা ও সরকারি পক্ষের যোগসাজশেই এসব অনিয়ম হয়েছে। তাঁর মতে, এর ফলে ব্যাপকভাবে অর্থ পাচার হয়েছে। রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া হয়েছে। নানা ধরনের দুর্নীতিও হয়েছে।

টিআইবি বলছে, এ দেশে কোনো প্রতিষ্ঠানে বিদেশি কর্মী নিয়োগ দিতে গেলে জনপ্রতি নিয়মবহির্ভূতভাবে ২৩ থেকে ৩৪ হাজার টাকা ঘুষ দিতে হয়।

বৈধভাবে বিদেশি কর্মী আনা হলে আটটি ধাপ সম্পন্ন করতে হয়। অবৈধভাবে বিদেশি কর্মী আনা হলে তিন ধাপেই নিয়োগ চক্র শেষ হয়। বেশির ভাগই পর্যটক ভিসায় এসে এ দেশে কাজ করেন।

সব মিলিয়ে আট ধরনের কাগজপত্র ঠিক করতে এই নিয়মবহির্ভূত আর্থিক লেনদেন করতে হয়। ভিসার সুপারিশপত্র, বিদেশে বাংলাদেশ মিশন থেকে ভিসা সংগ্রহ, বিদেশি নাগরিক নিবন্ধন, কর্ম অনুমতির জন্য আবেদন, নিরাপত্তা ছাড়পত্র (এসবি পুলিশ), নিরাপত্তা ছাড়পত্র (জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা), নিরাপত্তা ছাড়পত্র (স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়) এবং ভিসার মেয়াদ বৃদ্ধি.এই আট ধরনের কাগজপত্র প্রক্রিয়া করতে ঘুষ দিতে হয়। #


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অনুসন্ধান

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:১০ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ
  • ৩:৩৫ অপরাহ্ণ
  • ৫:১৪ অপরাহ্ণ
  • ৬:৩৩ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৭ পূর্বাহ্ণ

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপি এখন লিপসার্ভিসের দলে পরিণত হয়েছে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন? Live

  • হ্যাঁ
    33% 2 / 6
  • না
    66% 4 / 6