সর্বশেষঃ
লুটপাটের মামলায় ফারইস্ট লাইফের সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল কারাগারে অধিনায়ক সাবিনা বললেন এই ট্রফি ১৮ কোটি মানুষের নারী ফুটবলার রিতুপর্ণা চাকমা বিলবোর্ডে লেগে গুরুতর আহত দিনাজপুর বোর্ডের ৪ বিষয়ের প্রশ্ন ফাঁস: আটক ৩জন কারওয়ান বাজারে পচা মাছ-মাংস জব্দ: লাখ টাকা জরিমানা হাইকোর্টে ইভ্যালির অডিট রিপোর্র্ট দাখল: বিমানের চিফ ইঞ্জিনিয়ার সিদ্দিকসহ ৩জনকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ ফারইস্ট লাইফের মামলা: সাবেক পরিচালক খালেক ও ছেলে ৫দিনের রিমান্ডে ফারইস্ট লাইফে লুটপাটের মামলায় সাবেক চিফ এক্সিকিউটিভ হেমায়েত আটক দুদকে পদোন্নতির পর ৩ ডিজি আক্তার. সৈয়দ ইকবাল ও শিবলীসহ পরিচালকদের নতুন দপ্তর
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন

সরকার দেশে শক্তিশালী বিরোধী দল চায় না: মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

বিশেষ প্রতিনিধি,দূরবীন নিউজ :

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরতিনি বলেছেন, বর্তমান সরকার দেশে শক্তিশালী বিরোধী দল চায় না। ইতোমধ্যে‘‘ আওয়ামী লীগে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাহেব বলেছেন যে, বিএনপি নিয়ে এক সঙ্গে বাস করা যায় না। তাদের আসল যে চরিত্র, তাদের আসল যে মানসিকতা, সেটা বেরিয়ে এসেছে। তারা শক্তিশালী বিরোধী দল তো দূরের কথা, কোনো বিরোধী দলই চায় না। তাই ওবায়দুল কাদের সাহেবের এই বক্তব্য থেকে সেটাই প্রমাণিত হয়েছে।”

আজ বুধবার (১৬ জুন) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে বিএনপি স্বাধীনতা সূবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন জাতীয় কমিটির উদ্যোগে ১৬ জুন সংবাদপত্রের কালো দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত এক গোল টেবিল আলোচনায় বিএনপি মহাসচিব এসব কধা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন,‘‘ আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, বিএনপি কারো দয়ার দল না, বিএনপি কারো দয়াতে টিকে নাই। বিএনপি সম্পূর্ণভাবে অস্তিত্ব নিয়ে টিকে আছে জনগনের ভালোবাসা ও জনগনের সমর্থন নিয়ে। এই কথাটা অবশ্যই সরকারকে মনে রাখতে হবে।”
‘জনদৃষ্টি সরাতেই পরীমনি ইস্যু সামনে এনেছে’ জনগনকে বিভ্রান্ত করতেই সরকার পরীমনির ইস্যুকে সামনে নিয়ে এসেছে বলে অভিযোগ করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘‘এই যে দেখেন সাংবাদিক ভাইয়েরা- খুব লাফালাফি হচ্ছে এখন। ইস্যুটা হচ্ছে পরীমনি। হু ইজ পরীমনি?” ‘‘ আমরা কি বুঝি না যে, আপনার(সরকার) আবার সেই ডাইভারসান, আবার সেই অন্যদিকে নিয়ে যাওয়া। প্রতি মুহুর্তে জনগনকে বিভ্রান্ত করা, প্রতারনা করা, মিথ্যাচার করা -এটাই হচ্ছে কিন্তু ওদের (ক্ষমতাসীন) মূল কাজ। তারা মানুষকে বিভ্রান্ত করবে, মানুষকে ভুলপথে নিয়ে যাবে।”

জনগনকে বিভ্রান্ত করার কারণ তুলে ধরে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘‘ এখন আপনার যখন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য, তার মুক্তি নিয়ে যখন কথা ‍উঠছে, যখন দেশের গণতন্ত্র নিয়ে কথা উঠছে, যখন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একেবারে চরম ব্যর্থতা, কোভিড যখন চরমে উঠছে তখন আবার একটা এদের নিয়ে ডাইভারসান করা হচ্ছে।”

‘‘ এই ধরনের যে.. মানুষের সঙ্গে প্রতারনা করা, এই যে খেলা- এটা আওয়ামী লীগের পক্ষে সম্ভব।”‘সরকার কোনো বিরোধী দল চায় না’
মির্জা ফখরুল বলেন, ‘‘ আওয়ামী লীগে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাহেব বলেছেন যে, বিএনপির সঙ্গে এক সঙ্গে বাস করা যায় না। তাদের আসল যে চরিত্র, তাদের আসল যে মানসিকতা সেটা বেরিয়ে এসেছে। তারা শক্তিশালী বিরোধী দল তো দূরের কথা, কোনো বিরোধী দলই চায় না। তার এই বক্তব্য থেকে সেটাই প্রমাণিত হয়েছে।”

‘‘ আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, বিএনপি কারো দয়ার দল না, বিএনপি কারো দয়াতে টিকে নাই। বিএনপি সম্পূর্ণভাবে অস্তিত্ব নিয়ে টিকে আছে জনগনের ভালোবাসা ও জনগনের সমর্থন নিয়ে। এই কথাটা অবশ্যই সরকারকে মনে রাখতে হবে।”

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘‘আজকে যে অবস্থাটা তৈরি করেছে সরকার। এই যে মানুষের অধিকারগুলো কেড়ে নিয়েছে, এই যে, ১৯৭১ সালের স্বাধীনতার মূল চেতনা গণতন্ত্র তাকে যে ধবংস করেছে, হাজার হাজার মানুষকে হত্যা করেছে, গুম করেছে, খুন করেছে, ৩৫ লাখ গণতন্ত্রকামী মানুষের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়েছে।” ‘‘ এজন্য অবশ্যই আওয়ামী লীগের নিসন্দেহে একদিন বিচার হবে।জনগনই তাদের বিচার করবে।”

সারাদেশে সাংবাদিকদের ওপর নিপীড়ন নির্যাতনের জন্য সরকার ও প্রশাসনকে অভিযুক্ত করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘‘ বয়স্ক সম্পাদক দৈনিক সংগ্রামের সম্পাদক আবুল আসাদ সাহেবে দীর্ঘদিন আটক করে রাখা হয়েছিলো, সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজী সাহেবকে প্রায় ৮ মাস যাবত আটক করে রাখা হয়েছে।

‘‘ এখানে যারা দেশে আছেন তারা লিখতে পারেন না। লিখতে না পারার জন্য কখনো আমি তাদের দোষারোপ করি না। কারণ যে, ব্যবস্থা তৈরি করা হয়েছে, যে সেলফ সেন্সরশীপ নিজেদেরকে আরোপ করে নিতে হয়েছে তা হচ্ছে একমাত্র জীবনের ভয়, জীবিকার ভয়, সন্তান হারানোর ভয়, মামলার ভয়। কারণ ইতিমধ্যে আমরা দেখলাম সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে কিভাবে সচিবালয়ের ভেতরে নির্যাতন করা হলো।’’

এই অবস্থা থেকে উত্তরণে যুবসমাজসহ সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘‘ আমাদেরকে সকলকে জেগে উঠতে হবে। তুরন যুবকদের এগিয়ে আসতে হবে। আজকে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা, সংবাদ কর্মীদের নিরাপত্তা, তাদের মুক্তি সব কিছুই নির্ভর করছে গণতন্ত্রের মুক্তির উপর। গণতন্ত্র যদি মুক্তি না হয়, তাহলে কখনোই কারো মুক্তি সম্ভব নয়, কারো মুক্তি সম্ভব নয়।”

১৯৭৫ সালের ১৬ জুন বাংলাদেশে চারটি পত্রিকা রেখে সকল সংবাদপত্র বন্ধ করে দেয় সরকার। এদিনটিকে বিএনপি সংবাদপত্রের কালো দিবস হিসেবে পালন করে আসছে।
/এডিজেড /একে/দূরবীন নিউজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


অনুসন্ধান

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:৩৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ
  • ৪:১১ অপরাহ্ণ
  • ৫:৫৬ অপরাহ্ণ
  • ৭:০৯ অপরাহ্ণ
  • ৫:৪৭ পূর্বাহ্ণ

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপি এখন লিপসার্ভিসের দলে পরিণত হয়েছে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন? Live

  • হ্যাঁ
    33% 3 / 9
  • না
    66% 6 / 9