শিরোনাম :
‘জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে প্রথমবারের মতো চার বাংলাদেশী নারী বিচারকের অংশগ্রহণ’ ড্যাপ বাস্তবায়নে রিহ্যাব ও বিএলডিএ-এর সুপারিশ পর্যালোচনায় ওয়ার্কিং কমিটি গঠন: এলজিআরডি মন্ত্রী দেশের ইমেজ সবার আগে : প্রধান বিচারপতি সোহরাওয়ার্দীর সাবেক পরিচালক ডা. উত্তমের লাইসেন্স বাতিল ও সরকারি টাকা ফেরত চেয়ে আইনী নোটিশ ৭ মার্চের ভাষণ গেরিলা যুদ্ধের প্রস্ততি, রাজনীতির নির্দেশনার দলিল: দুদক চেয়ারম্যান ৭ই মার্চ বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণঃ ডিএসসিসি মেয়র নৃত্যশিল্পী ইভানের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ২৪ মার্চ ‘৭ দিনের মধ্যে বিটিআরসিকে দুদক কর্মকর্তার ‘ঘুষ দাবির’ কললিস্ট দাখিলের নির্দেশ’ কুড়িগ্রামের সাবেক ডিসিসহ সাংবাদিক নির্যাতনে জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা চলবে: সুপ্রমিকোর্ট প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে, পার্লামেন্ট মেম্বার্স ক্লাবকে হারিয়ে ডিএনসিসির জয় লাভ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ ও ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে ডিএসসিসিতে নানা আয়োজন দেশে করোনায় আরো ১০ জনের মৃত্যু এবং নতুন শনাক্ত ৫৪০ হুজির অপারেশন শাখার প্রধানসহ ৩ আসামি ৩ দিনের রিমান্ডে প্রয়োজনে জমি অধিগ্রহণ করে প্রতিটি ওয়ার্ডে খেলার মাঠ করা হবেঃ মেয়র তাপস স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ডিআরইউ’র মাসব্যাপী কর্মসূচি সাংবাদিক শাওনের রোগমুক্তির জন্য দোয়া কামনা ৭ মার্চ সারাদেশে ৬৬০ থানায় একযোগে পুলিশের অনুষ্ঠান থাকবে: আইজিপি শিগগিরই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন হচ্ছে: আইনমন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়া আইনমন্ত্রীর উপস্থিতিতে ২ মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ এবার মৃত ব্যক্তির ব্যাংকের টাকার পাওনাদার নিধারণী মামলা আপিল বিভাগ
সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৩:০৬ পূর্বাহ্ন

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে মমতার ঘেপষণা

দূরবীন নিউজ ডেস্ক :
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট ঘেপষণা দিলেন, পিছু হঠার সুযোগ নেই। সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) মমতার ঘোষণা, ‘আমার মৃতদেহের উপর দিয়ে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন(সিএএ) কার্যকরী করতে হবে । নাম না করে রাজ্যপালকেও তীব্র আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। পশ্চিমবঙ্গের অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তোলার আগে বিজেপি শাসিত অসাম নিয়ে ভাবুন’ মন্তব্য মমতার। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

সিএবি সংসদে পাশ হওয়ার পরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতা এবং হাওড়া জুড়ে তিন দিন মহামিছিল করবে তৃণমূল। কথা মতো সোমবার রেড রোড থেকে জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ি পর্যন্ত প্রায় চার কিলোমিটার পদযাত্রা করেন তিনি। সাথে ছিল বিশাল মিছিল।

মিছিল শেষ জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ির সামনে ভাষণ দেন তৃণমূল চেয়ারপার্সন তথা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সিএএ এবং এনআরসি যে পশ্চিমবঙ্গে কার্যকরী হতে দেবেন না, সে কথা আগে থেকেই নানা মাধ্যমে বলছিলেন মমতা। এ দিনের ভাষণে আরও জোর দিয়ে তিনি বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গে সিএএ বা এনআরসি কিছুতেই কার্যকরী করতে দেবেন না।

‘আমরা বাংলায় আছি। এখানে এনআরসি করতে হলে, আমার মৃতদেহের উপর দিয়ে করতে হবে, এখানে সিএবি করতে হলে আমার মৃতদেহের উপর দিয়ে করতে হবে,’ এই ভাষাতেই এ দিন নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে সুর চড়ান মমতা।

তার সরকার ফেলে দিয়ে যদি পশ্চিমবঙ্গে রাষ্ট্রপতি শাসন জারির চেষ্টাও হয়, তা হলেও তিনি পিছু হঠবেন না— মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ দিন খুব স্পষ্ট করে এই বার্তাও দিয়ে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘কোনো কোনো বিজেপি নেতা বলতে শুরু করেছেন, বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন কেন জারি হবে না? আমাদের সরকার ফেলে দেবেন? ফেলে দিন। কিন্তু ইজ্জতের জন্য যখন লড়তে নেমেছি, তখন মাথা নত করব না।’

রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের নাম এ দিন নেননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু তার ইঙ্গিত বেশ স্পষ্ট ছিল। তিনি বলেন, ‘এখানে আর একজন বড় বিজেপি নেতা এসেছেন। বলছেন— সাবধান করে দিচ্ছি, কেন অশান্তি হচ্ছে? আমি বলেছি, আগে আসামকে গিয়ে বলুন। সেখানে বিজেপির সরকার রয়েছে, তাদের বলুন।’

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি যে সব সময়ই রাজ্যের বিষয় এবং সে বিষয়ে কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপের কোনও চেষ্টা যে তিনি পছন্দ করেন না, তা আগেও অনেক বার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুঝিয়ে দিয়েছেন।

গত চার দিনে রাজ্য জুড়ে উত্তপ্ত পরিস্থিতির প্রেক্ষিতেও যে তিনি সেই অবস্থানেই অনড় রয়েছেন, মমতা এ দিন তা-ও বুঝিয়ে দেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমাকে জিজ্ঞাসা করছে, সিআইএসএফ লাগবে? বিএসএফ লাগবে? আমি বলেছি, কিচ্ছু লাগবে না। আমাদের পুলিশই যথেষ্ট।’ পশ্চিমবঙ্গের সাধারণ মানুষ এবং পুলিশ পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে পরিস্থিতি সামলে নেবেন, কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রয়োজন নেই— এই বার্তাই এ দিন দিতে চেয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নাগরিকত্ব আইন নতুন করে তৈরি করার কোনও প্রয়োজন ছিল না— এ কথাই এ দিন জোর দিয়ে বলতে চেয়েছেন তৃণমূল চেয়ারপার্সন। জমায়েতের উদ্দেশে এ দিন তিনি প্রশ্ন করেন, ‘আপনারা ভোট দেন না? আপনাদের নাম ভোটার তালিকায় নেই? আপনাদের ছেলেমেয়েরা স্কুলে পড়ে না? তা হলে আবার কিসের নাগরিকত্ব আপনাকে দেবে?’

অশান্তির বিরুদ্ধেও এ দিন বার্তা দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ট্রেন বা সরকারি সম্পত্তিতে আগুন দেওয়া বা রাস্তা অবরোধ করার বিরুদ্ধে বার্তা দিয়েছেন। তবে তাঁর অভিযোগ, যাঁরা অশান্তি ছড়াচ্ছেন, তাঁরা বিজেপির কাছ থেকে টাকা নিয়েই এই পরিস্থিতি তৈরি করছেন।

সিএএ এবং এনআরসি প্রত্যাহার করতেই হবে, কেন্দ্রীয় সরকারকে এ দিন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মমতা। তার কথায়, ‘যত ক্ষণ না প্রত্যাহার করা হচ্ছে, তত ক্ষণ আমরা রাস্তায় আন্দোলন চালিয়ে যাব। মনে রাখবেন, কেউ না থাকলেও, আমরা থাকব। #


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অনুসন্ধান

করোনা আপডেট

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
১১৬,৩৫১,৩৯৬
সুস্থ
৬৫,৮৩০,৬৪৫
মৃত্যু
২,৫৮৫,৯১৯

.