সর্বশেষঃ
২৫ মে বঙ্গবাজার বিপনী বিতান নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী ও ঠিকাদারের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা অপকর্ম আড়াল করতে সরকারের জুলুম বাড়ছে: বিএনপি মহাসচিব ঢাকায় ব্যাটারিচালিত রিকশা চলবে: প্রধানমন্ত্রী ইরানে পাঁচদিনের শোক ঘোষণা ইরানের জনপ্রিয়  প্রেসিডেন্ট  ইব্রাহিম রইসি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও অন্যদের লাশ উদ্ধার নেত্রকোনায় দুই দিন ব্যাপী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন  অনুমোদনহীন ড্রিংকস উৎপাদন ও বিক্রি; একমি.প্রাণ.দেশবন্ধু.আকিজসহ ৫ মালিককে আদালতে তলব এডিসের লার্ভা পেলে ছাড় দেওয়া হবে না: মেয়র আতিক কুড়িগ্রামে ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের সমর্থেে ছাত্র সমাবেশ
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০১:১০ অপরাহ্ন

বিদ্যুতের ভুতুড়ে বিলে ৩০০ জনের বিরুদ্ধে শাস্তির সুপারিশ করেছ. টাস্কফোর্স

দূরবীণ নিউজ প্রতিবেদক :
অবশেষে দেশের ৪টি বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থার প্রায় ৩০০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করেছে বিদ্যুৎ বিভাগ গঠিত টাস্কফোর্স। ইতোমধ্যে ডিপিডিসির ৫ জন বরখাস্ত করা হয়েছে।

কারণ ওইসব কর্মকর্তা কর্মচারীরা দেশের মানুষকে জিম্মি করে ফেলেছে। ৭ দিনের মধ্যে তাদের বানানো বিদ্যুতের ভুতুড়ে বিল সমন্বয় করতে ব্যর্থ হলে বিদ্যূৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার হুমকি পর্যন্ত দিয়েছে।

আর এই ঘটনায় সরকার গত ২৫ জুন বিদ্যুৎ বিভাগ একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে টাস্কফোর্স গঠন করে। পরে তদন্ত করে টাস্কফোর্স ৭ দিনের মধ্যে ভুতুড়ে বিলের সমাধান না করতে পারলে বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে শাস্তি ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশসহ প্রতিবেদন দিয়েছেন।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ; একজন বিদ্যুৎ গ্রাহক ” মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সমীপে’ লিখেছেন; দেশব্যাপী স্থানভেদে ১০/১১ গুণ বেশী ভূতুড়ে বিদ্যুৎ বিল আদায় না করতে আপনার জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছি৷ দেশের ক্রান্তিলগ্নে করোনা ভাইরাস নামক মহামারীতে মানুষের জীবন যখন বিপন্ন ঠিক সেই মুহূর্তে বিদ্যুৎ বিভাগের একদল ষড়যন্ত্রকারী সরকারকে বেকায়দায় ফেলানোর জন্য স্বাভাবিকের তুলনায় ১০/১১ গুণ বেশী করে মনগড়া বিদ্যুৎ বিল তৈরি করে তা আদায়ের জন্য জরিমানার ভয় দেখানো হচ্ছে।বিল পরিশোধে বাড়ীওয়ালারা বাধ্য করছেন ৷ ওই ব্যক্তির প্রতিমাসে ৪০০/৫০০ টাকা বিদ্যুৎ বিল হয়, সেখানে জুন মাসের বিদ্যুৎ বিল আসছে ৪ হাজার ১১০ টাকা । যা অন্যান্য মাসের তুলনায় ১০/১১ গুণ বেশী ৷

তিনি এমতাবস্থায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট সবিনয় নিবেদন, অনুগ্রহ পূর্বক দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে দেশব্যাপী বিদ্যুৎ বিভাগের অসৎ লোকদের দ্বারা তৈরি ভুতুড়ে ও অসামঞ্জস্যপূর্ণ জুন/২০২০ মাসের বিদ্যুৎ বিল বাতিল করতঃ এর সাথে জড়িত সকলের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নিন৷ একই সাথে মন্ত্রণালয়ের প্রতিমণ্ত্রী , সচিব ও সংশ্লিষ্ট আমলাদের অপসারণ দাবী জানিয়েছেন। এই আবেদনকারী নাম  মো: ইউনুস ; ঠিকানা; ৮/১০ বসতি হাউজিং বড় বাগ মিরপুর, ঢাকা৷ এই ধরনের ভুতড়ে বিদ্যুৎ বিলের আরো অনেক অভিযোগ ফেসবুকে প্রকাশিত হয়েছে।

আরো অভিযোগ রয়েছে, রাজধানীর মিরপুর থানার ২৬৭/৫ পশ্চিম শেওড়াপাড়ায় দুই ইউনিটের ৫ তলা ভবনে বিদ্যুতের ভূতুড়ে  বিল পাঠানোর খবর পাওয়া গেছে। ওই ভবনের ৪র্থ তলার এক ইউনিটের ভাড়াটিয়েকে দেয়া বিদ্যুতের বিলে দেখা যায়; ২০২০ সালের জানুয়ারিতে বিদ্যুৎ বিল- ৩৬৮ টাকা, ফ্রেব্রুয়ারিতে বিদ্যুৎ বিল- ৩৬৮ টাকা, মার্চে বিদ্যুৎ বিল-৫১২ টাকা, এপ্রিলে বিদ্যুৎ বিল- ৬২২ টাকা, হঠাৎ করে গত মে মাসে বিদ্যূৎ বিল- ২ হাজার ১৪৩ টাকা এবং জুন মাসে বিদ্যুৎ বিল-১ হাজার ৪২ টাকা পরিশোধ করতে ওই বাড়ির মালিক তার ভাড়াটিয়েকে চাপ প্রয়োগ করছেন। একই ধরনের বিদ্যুতের ভূতুড়ে  বিল অন্যান্য ভাড়াটিয়েকে পরিশোধ করতে বলা হচ্ছে। ফলে এই বিষয়টি দ্রুত তদন্ত করে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন ওই ভবনের লোকজন।

আরো জানা যায়, সরকারের গঠিত টাস্কফোর্সের প্রতিবেদন আমলে নিয়ে ডাইরেক্ট অ্যাকশনে গেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এরমধ্যে ঢাকার দক্ষিণে বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থা ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির (ডিপিডিসি) ৪ জন প্রকৌশলী সাময়িক বরখাস্ত করার সুপারিশ করেছে। এ ছাড়া ৩৬ জন প্রকৌশলীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া এবং আর ১৩ জন মিটার রিডার সুপারভাইজারকে বরখাস্ত করার সুপারিশ করেছে।

ঢাকা উত্তরের বিতরণ সংস্থা ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেডের (ডেসকো) দু’জন মিটার রিডারকে বরখাস্তের সুপারিশ করেছে। রাজশাহী ও রংপুরের ১৬ জেলায় বিদ্যুৎ বিতরণ সংস্থা নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি (নেসকো) লিমিটেডের দুজন মিটার রিডার বরখাস্ত করার সুপারিশ করা হয়েছে।

আর দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার বিতরণ সংস্থা ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড ২৩০ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে কারণ দর্শাও, বরখাস্ত সহ বিভিন্ন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। দেশের সব থেকে বড় বিতরণ সংস্থা পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের (আরইবি) ৮০টি সমিতির কারা কারা ভুতুড়ে বিলের জন্য দায়ী এ ব্যাপারে এখনো কোনো তথ্য দেয়নি আরইবি। এখনো কোনো তথ্য দেয়নি বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডও (পিডিবি)।

এর মধ্যে টাস্কফোর্স কমিটির দেওয়া সুপারিশ অনুযায়ী ত্বরিত সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিপিডিসি। সুপারিশ অনুযায়ী যে চারজন কর্মকর্তাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে আদাবর আঞ্চলিক কার্যালয়ের প্রকৌশলী মো. হেলাল উদ্দিন, একই এলাকায় দায়িত্বে থাকা উপবিভাগীয় প্রকৌশলী মো. রায়হানুল আলম, সহকারী প্রকৌশলী মো. মজিবুল রহমান ভূঁইয়া ও কম্পিউটার ডেটা এন্ট্রি কো অর্ডিনেটর জেসমিন আহমেদ। সাময়িক বরখাস্ত হওয়া ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অধিকতর তদন্ত শেষে দোষী প্রমাণিত হলে স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে। এ ছাড়া ৩৬টি আঞ্চলিক এর নির্বাহী প্রকৌশলীদের কারণ দর্শাও নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডিপিডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকাশ দেওয়ান চাকমা মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘মন্ত্রণালয় থেকে একটি কমিটি গঠন করে সাত দিনের সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। কমিটির সুপারিশে অনুযায়ী কিছু ব্যক্তিকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে, ৩৬ জনকে কারণ দর্শাও নোটিশ দেওয়া হয়েছে। কিছু মাঠ কর্মীকে বরখাস্তের সুপারিশ করা হয়েছে। আমরা কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করেছি।

প্রসঙ্গত, দেশে ছয়টি বিতরণ সংস্থা রয়েছে। এদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে প্রকৃত বিলের চেয়ে কোথাও কোথাও তিন থেকে ১০ গুন বেশি বিল করার অভিযোগ উঠেছে। # কাশেম


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


অনুসন্ধান

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫২ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ
  • ৪:৩৩ অপরাহ্ণ
  • ৬:৪০ অপরাহ্ণ
  • ৮:০৩ অপরাহ্ণ
  • ৫:১৩ পূর্বাহ্ণ

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপি এখন লিপসার্ভিসের দলে পরিণত হয়েছে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন? Live

  • হ্যাঁ
    25% 3 / 12
  • না
    75% 9 / 12