সর্বশেষঃ
স্বল্প আয়ের আবাসনকে নীতি প্রণোদনার পাশাপাশি নাগরিক সুবিধাদি নিশ্চিত করা প্রয়োজনঃ বিশেষজ্ঞদের অভিমত শ্রমিকদের চাঁদাবাজি প্রতিরোধ খেয়াল রাখতাম: মন্নুজান সুফিয়ান বঙ্গমাতা গোল্ড কাপের ফলেই সাফ নারী ফুটবলের শিরোপা জয় : গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী মিরপুরে খেলার মাঠের দাবিতে অনশনরত শিক্ষার্থীদের সাথে ডিএনসিসি মেয়রের সংহতি তত্ত্বাবধায়ক সরকারে ফিরে যাওয়ার সুযোগ নেই: আইনমন্ত্রী ন্যাশনাল ব্যাংকের কর্মকর্তা জহুরের বিরুদ্ধে সোয়া ৩ কোটি টাকার মামলা দুদকের গ্রাহকদের টাকা ফেরতের শর্তে হোমল্যান্ড লাইফের ৭ পরিচালকের জামিন লুটপাটের মামলায় ফারইস্ট লাইফের সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল কারাগারে অধিনায়ক সাবিনা বললেন এই ট্রফি ১৮ কোটি মানুষের নারী ফুটবলার রিতুপর্ণা চাকমা বিলবোর্ডে লেগে গুরুতর আহত
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪৮ পূর্বাহ্ন

বিএনপি সরকার পতন আন্দোলনের পথে আছে: আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী

ফাইল ছবি

বিশেষ প্রতিনিধি, দূরবীণ নিউজ :

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী আমীর খসুর মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বিএনপি সরকার পতন আন্দোলনের পথে আছে। আর তারেকের নেতৃত্বেই সরকারের পতন ঘটানো হবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি ।

আজ (২৬জুলাই) সোমবার বিকালে এক ভার্চুয়াল আলোচনা এই মন্তব্য করেন। আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, “ বিএনপি সরকার পতন আন্দোলনের পথে আছে। এই পথে আমাদের সহযাত্রী হিসেবে আছে দেশের ১৬ কোটি মানুষ, আর যারা গণতন্ত্রের বিশ্বাস করে, আইনের শাসনে বিশ্বাস করে, নির্বাচিত সরকারে বিশ্বাস করে তারা। সেই গন্তব্যস্থলের দিকে আমরা কিন্তু যাচ্ছি।”

তিনি বলেন,“ সেটা কিন্তু কেউ রুখে দাঁড়াতে পারবে না। মুক্তির পথে সবাই চলছে। কেউ সামনে কেউ পিছনে কেউ ডানে কেউ বামে। আমরা সেই পথে চলছি। সব কিছু তৈরি আছে। তারেক রহমান সাহেব সেই কাজটি করছেন।”

আমীর খসরু বলেন, “ আমাদেরকে সমন্বিতভাবে এই পথে(আন্দোলন) শক্তি এনে এটাকে শক্তিশালী করে এই সরকারের পতন ঘটাতে হবে, এই ফ্যাসিস্ট শাসনে অবসান ঘটাতে হবে। এদের বিরুদ্ধে সমস্ত জাতিকে একতাবদ্ধ করতে হবে। সব শ্রেনীর মানুষ সেই মুক্তির অপেক্ষায় আছে।”

“ আমি দৃঢ়তার সাথে বলতে চাই, বিএনপিতে নেতৃত্বের কোনো সংকট নাই।আমরা সবাই তারেক রহমান সাহেবের নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছি ‍সুষ্ঠুভাবে, সুন্দরভাবে।একবার এদেশকে মুক্তি করেছিলেন শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান, একদলীয় বাকশাল থেকে দেশকে তিনি মুক্ত করেছিলেন। আরেকবার এরশাদের স্বৈরাচারী সরকার থেকে দেশকে মুক্ত করে ছিলেন এককভাবে যিনি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আন্দোলন করে তিনি হচ্ছেন আমাদের দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। আর এবার অবৈধ ফ্যাসিস্ট সরকার থেকে দেশকে মুক্তি করবেন তারেক রহমান সাহেব। তার নেতৃত্বে মুক্ত হবেন বাংলদেশ।”

তিনি বলেন, “ আমি এটাকে সরকার বলি না। আমি একটা রেজিম বলি। যারা দেশের মানুষের ভোট কেড়ে নিতে পারে, যারা দেশের মানুষের মানবাধিকার কেড়ে নিতে পারে, যারা দেশের মানুষের আইনের শাসন কেড়ে নিতে পারেন, যারা দেশের মানুষের নিরাত্তা কেড়ে নিতে পারে তারা হচ্ছে এই রেজিমের সদস্য। এর মধ্যে রাজনীতিবিদ আছে, এর মধ্যে সরকারি কর্মকর্তা আছে,এর মধ্যে তথাকথিত সুশীল সমাজের লোক আছে, এর মধ্যে লুটেরা ব্যবসায়ীরা আছে।”

আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, “ এটার সাথে রাজনীতির কোনো সম্পর্ক নাই। এটার সাথে আওয়ামী লীগেরও কোনো সম্পর্ক নাই। যদি আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক দল হিসেবে থেকে থাকে তাহলে এটা আওয়ামী লীগেরও না।”

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন’ এর উদ্যোগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও সাবেক ছাত্র দলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক সরকারের মুক্তির দাবিতে এই ভার্চুয়াল আলোচনা সভা হয়।

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলনের আহবায়ক ছাত্র দলের দফতর সম্পাদক আবদুস সাত্তার পাটোয়ারির সভাপতিত্বে ও ছাত্র দলের সহ সাধারণ সম্পাদক আবু আফসান মোহাম্মদ ইয়াহইয়’র সঞ্চালনায় এই ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় বিএনপির শামুসজ্জামান দুদু, আমানউল্লাহ আমান, আসাদুজ্জামান রিপন, ফজলুল হক মিলন, কামরুজ্জামান রতন, আজিজুল বারী হেলাল, এবিএম মোশাররফ হোসেন, যুব দলের সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের আবদুল কাদির ভুঁইয়া জুয়েল, ছাত্র দলের ফজলুর রহমান খোকন, ইকবাল হোসেন শ্যামল, কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবন, আমিনুর রহমান আমিন, সাইফ মাহমুদ জুয়েল ও কারাবন্দি ছাত্র দলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক সরকারের ভাই ইয়াকুব সরকার বক্তব্য রাখেন।

এডিজেড/একে/দূরবীণ নিউজ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


অনুসন্ধান

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:৪০ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫০ পূর্বাহ্ণ
  • ৪:০৩ অপরাহ্ণ
  • ৫:৪৫ অপরাহ্ণ
  • ৬:৫৮ অপরাহ্ণ
  • ৫:৫১ পূর্বাহ্ণ

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপি এখন লিপসার্ভিসের দলে পরিণত হয়েছে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন? Live

  • হ্যাঁ
    33% 3 / 9
  • না
    66% 6 / 9