সর্বশেষঃ
ডিএসসিসির ১ ইঞ্চি জমিও আর কেউ অবৈধভাবে দখলে রাখতে পারবে না মেয়র তাপস  RAJUK Employee Management System (REMS)-বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত ডেঙ্গু মোকাবিলা করা বড় চ্যালেঞ্জ : মেয়র আতিকুল ইসলাম শেখ হাসিনাকে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট ও জর্জিয়ার প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন শিশু আয়ানের মৃত্যু, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রিপোর্ট হাস্যকর : হাইকোর্ট ২৫ কোটি ২২ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে দুদকের চার্জশিট ক্র্যাবের নতুন সভাপতি ভোরের কাগজের কামরুজ্জামান, সম্পাদক যুগান্তরের সিরাজ সাকরাইনের ঐতিহ্য নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে চান মেয়র শেখ তাপস ১ কোটি মানুষকে টিসিবি কার্ড দিয়েছে সরকার: মেয়র শেখ তাপস ঢাকাদক্ষিণ সিটিতে সকল ভোট কেন্দ্রে বিশেষ মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম
শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৩২ অপরাহ্ন

প্রস্তুুতি সম্পন্ন, ডিএনসিসিতে শ্রমিক লীগের নির্বাচনে থাকছে সিসি ক্যামেরা

আবুল কাশেম ( দূরবীন নিউজ প্রতিবেদক ) :
সিসি ক্যামেরার আওতায় ও কড়ানিরাপত্তা বেস্টনির মধ্যে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) শ্রমিক কর্মচারী লীগের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে ভোট গ্রহণ হচ্ছে।

রাজধানীর মহখালীতে ডিএনসিসির অঞ্চলিক কার্যালয়-৩ এ ভোট কেন্দ্রটিতে শ্রমিক কর্মচারী লীগের নির্বাচনে ভোট গ্রহণ করা হবে । ইতোমধ্যে এই ভোট কেন্দ্রের সকল প্রস্তুুতি সম্পন্ন বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার মো. মফিজুর রহমান ভূঁইয়া।
তিনি জানান, ভোটের দিন প্রয়োজনীয় র্যাব , পুলিশ ও ডিএনসিসির কর্মকর্তাদের উপস্থিত থাকবেন। এমনকি জাতীয় নির্বাচনের ন্যয় এই নির্বাচনেও ব্যবহ্নত হচ্ছে স্বচ্ছ ব্যালট বাক্স।

তিনি আরো জানান, আগামী ১৬ নভেম্বর শনিবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হবে। এই নির্বাচনে ১,৬১৮ জন ভোটারের জন্য তৈরি করা হচ্ছে ৮টি বুর্থ। সাড়িবদ্ধভাবে ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেবার সুযোগ পাবেন।

এদিকে নাম না প্রকাশের শর্তে ডিএনসিসির সাধারণ কর্মচারীরা জানান, শ্রমিক কর্মচারী লীগের এই নির্বাচন অনেক কঠিন হচ্ছে। কারণ এই নির্বাচনে এবার নবীন, প্রবীন ক্লিন ইমেজের নম্র ভদ্র , সৎ এবং কর্মচারী বান্ধব প্রার্থী রয়েছেন। অবার এমন প্রার্থীও রয়েছেন, যাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, ডিএনসিসির অর্থ আত্মসাৎ এবং উগ্র আচরণের অভিযোগও রয়েছে।

তারা আরো জানান, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) সৃষ্টির টানা ৮ বছর পর এবার শ্রমিক কর্মচারী লীগের নির্বাচনে সরাসরি ভোট গ্রহণ হচ্ছে। তবে ভোট দেওয়ার সুযোগ পেয়ে অনেকেই খুশি। সাধারণ ভোটাররা এবার নানা হিসেব নিকাশ করছেন।

টানা ৮ বছর ডিএনসিসিতে শ্রমিক কর্মচারী লীগের নেতৃত্বে থেকে প্রভাশালী নেতারা সাধারণ কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জন্য কি করেছেন। কর্মচারীদের পোশাকেরে টাকায় কারা ভাগ বসিয়েছেন। মাস্টার রোলের কর্মচারী নিয়োগেও কারা বাণিজ্য করেছেন। কারা কর্মচারীদের নেতা সেজে কর্মচারীদের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছেন।

বিগত দিনে কোন নেতা সাধারণ কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাথে খারাপ আচরণ করেছেন এমনকি দলের পদ পদবি ব্যবহার করে কারা সাধারণ কর্মকর্তা- কর্মচারীদের সুবিধাজনক স্থানে বদলি, পদায়নের নামে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। ওই সব বিষয় নিয়েও গবেষণা চলছে। এবার ভোটের মাধ্যমে দুর্নীতিবাজ বদমেজাজী নেতাদের বিরুদ্ধে গণরায় দেওয়া প্রস্তুতি নিচ্ছেন সাধারণ ভোটাররা এমন মন্তব্যই করছেন তারা।

তারা আরো জানান, প্রতিদ্বন্দ্বি ৩টি পরিষদের ভেতরই একাধিক ভাল প্রার্থীও রয়েছেন। তবে কোন পরিষদের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের সাথে ডিএনসিসির মেয়র, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, সচিব এবং বিভাগীয় প্রধানসহ উধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুসম্পর্ক রয়েছে সে বিষয়টিকেও প্রধান্য দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে সরেজমিন পরিদর্শনকালে এবং সাধারণ ভোটারদের সাথে কথা বলেন এই প্রতিবেদক। রাজধানীর উত্তরা, মিরপুর, গাবতলী ,গুলশান , মহাখালী ও কাওরানবাজারসহ ৫টি অঞ্চিলিক কার্যালয়সহ নগর ভবননের সামনেও প্রতিদ্বন্দ্বি প্রধান ৩টি পরিষদের নেতাদের ছবিস্বলিত পোস্টার, ব্যানার ও ফ্যাস্টুনে ছেয়েগেছে।

আর ভোট কেন্দ্র মহখালীতে ডিএনসিসির আঞ্চলিক কার্যালয়ের সামনে বিশাল চত্বরে প্রতিদ্বন্দ্বি ৩টি পরিষদের নেতাা পৃথক প্যান্ডেল তৈরি করেছেন। উৎসবমুখর পরিবেশে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা মূলক এই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন নেতা- কর্মীরা।

বৃহস্পতিবার ডিএনসিসির এই নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার মো. মফিজুর রহমান ভূাঁইয়া, নির্বাচন কমিশনার ফরিদ আহমেদ ও নির্বাচন কমিশনার মো. আবদুল কাদের প্রতিদ্বন্দ্বি পরিষদের প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রতীকসহ ব্যালট পেপার ছাপিয়েছেন।

জানা যায়, ডিএনসিসির শ্রমিক কর্মচারী লীগের নির্বাচনে সভাপতি, কার্যকরী সভাপতি, সহ সভাপতি ৪ জন, সাধারণ সম্পাদক, যুগ্ম সম্পাদক,সহ সাধারণ সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক, অর্থ সম্পাদক, দপ্তর সম্পাদক , প্রচার সম্পাদক, সমাজ কল্যাণ ও ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, শ্রম ও আইন বিষয়ক সম্পাদক, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও একজন নির্বাহী সদস্য নিয়ে ১৭ সদস্যে কমিটি হবে।

প্রতিদ্বন্দ্বি বজলুল মোহাইমিন বকুলের নেতৃত্বে ‘বকুল-হারুন- রোকন’ কর্মচারী কল্যাণ পরিষদ ছাতা মার্কা।

মো. আবদুর রশিদের নেতৃত্বে ‘রশিদ-কাদের- বাবুল’ শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ চেয়ার মার্কা। মো. জামাল হোসেনের নেতৃত্বে ‘জামাল- সোহেল- মাহতাব’ শ্রমিক কর্মচারী সততা পরিষদ বেলচা মার্কা। #


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


অনুসন্ধান

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:১৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১৬ অপরাহ্ণ
  • ৪:১৯ অপরাহ্ণ
  • ৬:০০ অপরাহ্ণ
  • ৭:১৪ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৮ পূর্বাহ্ণ

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপি এখন লিপসার্ভিসের দলে পরিণত হয়েছে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন? Live

  • হ্যাঁ
    30% 3 / 10
  • না
    70% 7 / 10