সর্বশেষঃ
বৃষ্টিতে রাজধানীতে জলাবদ্ধতা, নগরবাসীর দুভোগ বেড়েছে ঘূর্ণিঝড়ে ৩৫ হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত, প্রাণহানি-১০ ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে, আরিচা-কাজিরহাট ও পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ফেরিসহ নৌযান চলাচল বন্ধ ডিএনসিসির কাউন্সিলর কাশেমকে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ পটুয়াখালীতে  ঘূর্ণিঝড়ের তান্ডবে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে দক্ষিণালীয় এলাকার বাড়ি ঘর পানির নিচে ঝড়বৃষ্টিতে মেট্রোরেল চলাচলে সকাল থেকে বিঘ্ন। ঘূর্ণিঝড় রিমাল সারাদেশে বৃষ্টিসহ ঝড় বইছে ২৫ মে বঙ্গবাজার বিপনী বিতান নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী ও ঠিকাদারের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা
বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ১২:১০ পূর্বাহ্ন

নতুন ১৮ ওয়ার্ডে পরিকল্পিতভাবে খেলার মাঠ করা হবেঃ মেয়র শেখ তাপস

দূরবীণ নিউজ প্রতিবেদক :
ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে অধিভুক্ত হওয়া নতুন ১৮টি ওয়ার্ডে পরিকল্পিতভাবে খেলার মাঠ সৃষ্টি করা হবে বলে জানিয়েছেন মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে ডেমরা এলাকায় মেন্দিপুর খেলার মাঠ পরিদর্শন শেষে গণমাধ্যমের সাথে মতবিনিময়কালে মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এ পরিকল্পনার কথা জানান।

মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, “নির্বাচনী ইশতেহারেই আমি বলেছিলাম, ছোট হোক বা বড় হোক, প্রতিটি ওয়ার্ডেই ন্যূনতম একটি করে খেলার মাঠ/ উদ্যান সৃষ্টির উদ্যোগ নেওয়া হবে। সে প্রেক্ষিতে আমরা অনেক জায়গা দখলমুক্ত করে ১০টি ওয়ার্ডে নতুন করে খেলার মাঠ সৃষ্টি করেছি। আজকে আমরা যে ৭০ নম্বর ওয়ার্ডে এসেছি সেটি এর আগে ইউনিয়ন পরিষদের আওতাভুক্ত ছিল। নতুন যে ১৮টি ওয়ার্ড সিটি করপোরেশনে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে ৭০ নম্বরে ওয়ার্ড তারই একটি। নতুন এই ১৮টি ওয়ার্ডে পরিকল্পিতভাবে খেলার মাঠ সৃষ্টি করা হবে।”

এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস বলেন, “দখলদারদের তালিকা করে তেমন সুফল পাওয়া যায় না। নতুন নতুন দখলদার সৃষ্টি হয়। আমরা খালগুলো পাওয়ার সাথে সাথে প্রথম দফাতেই একটা বড় অংশ দখলমুক্ত করি। কিন্তু দেখা যায় যে, ভূমিদস্যরা কিন্তু থেমে থাকে না। তারা কিন্তু সুযোগের সন্ধানে থাকে। আবার দখল করার চেষ্টা করে। সেজন্য খাল উদ্ধারে আমরা দীর্ঘস্থায়ীভাবে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার আওতায় আগাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রী আমাদের চারটি খাল (শ্যামপুর, জিরানি, মান্ডা ও কালুনগর খাল) নিয়ে যে প্রকল্প দিয়েছেন আমরা তা বাস্তবায়নে সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার দিচ্ছি।”

সোকওয়েল ও সেফটিক ট্যাংক নিয়ে করা সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস বলেন, “এটা অত্যন্ত দুরুহ। কারণ দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে যেটা অপরিকল্পিতভাবে হয়ে আসছে সেটা খুব দ্রুত যে সম্পন্ন হবে তা আশা করা যায় না। একদিকে যে নতুন বাসা-বাড়ি, স্থাপনা হচ্ছে তারা যেন নিজস্ব সোকওয়েল ও সেফটিক ট্যাংক স্থাপন করেন সেজন্য আমরা তাদেরকে অনুপ্রাণিত করছি। যাতে করে তারা নিজেদের সেপটিক ট্যাংক এবং সোকওয়েল করে সেজন্য অনেক ক্ষেত্রে কঠোরও হচ্ছি। কারণ, আপনারা জানেন যে — পয়ঃপ্রণালি বা পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা এখনো ওয়াসার কাছে। তারা কিন্তু এখন পর্যন্ত পয়ঃপ্রণালি নর্দমা তৈরি করতে পারে নাই এবং আদৌ কবে নাগাদ তৈরি করতে পারবে সেটার কিন্তু কোনো নিশ্চয়তা নাই। আমাদের যে ইমারত নির্মাণ বিধিমালা রয়েছে সেটার প্রেক্ষিতে প্রত্যেক বাসা-বাড়ি, স্থাপনায় নিজস্ব সেপটিক ট্যাংক এবং সোকওয়েল থাকলে সেখান থেকে যে পানি আসবে সেটা পয়ঃবর্জ্য হবে না। পরিষ্কার পানি বের হবে।”

অপরিকল্পিতভাবে হুটহাট চমক দেখালে খাল-নদীকে পয়ঃপ্রণালীর দূষণ হতে রক্ষা করা যাবে না উল্লেখ করে মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস এ সময় বলেন, “আমরা যে খালগুলো নিয়ে কাজ করছি সেখানেও অনেক পয়ঃবর্জ্যের সংযোগ রয়েছে। জিরানী, মান্ডা, কালুনগর ও শ্যামপুর খালে যে পয়ঃপ্রণালি সংযোগ রয়েছে সেগুলোকে আমরা অন্য দিকে ধাবিত করব। খালের পাশ দিয়ে পিট করে দিব। সেই পিট দিয়ে এগুলো মূল প্রণালি সংযোগে চলে যাবে। খালে যেন এই পানিটা নিষ্কাশন না হয়। পর্যায়ক্রমে আমরা এই কাজটি করব। এখনই তাৎক্ষণিকভাবে হয়তো আমরা অল্প সময়ের জন্য এই সুফল দিতে পারছি না। কিন্তু এগুলো ধাপে ধাপে বাস্তবায়ন হলে ইনশাআল্লাহ পয়ঃপ্রণালি পানিটা আর খালে আসবে না। নদীতেও যাবে না। নদীর পানি যেভাবে দূষিত হচ্ছে সেটা থেকেও পর্যায়ক্রমে আমরা ধাপে ধাপে মুক্ত হবো। আমরা মনে করি যে, পরিকল্পিত আকারে আগালে সমাধান পাব। অপরিকল্পিতভাবে হুটহাট চমক দেখালে খাল-নদীকে পয়ঃপ্রণালীর দূষণ হতে রক্ষা করা যাবে না। আমরাও সমাধান পাবো না।”

এর আগে মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস নীলক্ষেত ওয়াসা গলিতে মরিয়ম বিবি শাহী মসজিদ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন এবং ইত্তেফাক ভবন নিকটবর্তী, টিকাটুলি বাস স্টপেজ ও হাটখোলা মন্দিরের বিপরীত পার্শ্বে অবস্থিত সংবাদপত্র বিক্রয় কেন্দ্র পরিদর্শন করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমান, সচিব আকরামুজ্জামান, প্রধান প্রকৌশলী আশিকুর রহমান, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আরিফুল হক, ২ নম্বর অঞ্চলের আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা সোয়ে মেন জো, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী কাজী বোরহান উদ্দিন, কাউন্সিলরদের মধ্যে ৭০ নম্বর ওয়ার্ডের মোহাম্মদ আতিকুর রহমান এবং সংরক্ষিত আসনের সেলিনা খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। #কাশেম


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


অনুসন্ধান

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৪৬ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০১ অপরাহ্ণ
  • ৪:৩৭ অপরাহ্ণ
  • ৬:৪৯ অপরাহ্ণ
  • ৮:১৫ অপরাহ্ণ
  • ৫:১০ পূর্বাহ্ণ

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপি এখন লিপসার্ভিসের দলে পরিণত হয়েছে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন? Live

  • হ্যাঁ
    25% 3 / 12
  • না
    75% 9 / 12