সর্বশেষঃ
শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:১৮ পূর্বাহ্ন

দিনাজপুরে ইউএনও ওয়াহিদার ওপর হামলা, নবীরুল ও সান্টু চন্দ্র দাস ৭ দিনের রিমান্ডে

দূরবীণ নিউজ ডেস্ক :
বহুল আলোচিত ন্যাক্কারজনক, দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট ইউএনও ওয়াহিদা খানমের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ২ আসামিকে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

এদিন আসামি নবীরুল ইসলাম ও সান্টু চন্দ্র দাসকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্যদিয়ে দিনাজপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শিশির কুমার বসুর আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। আদালত ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। মামলার অপর আসামি আসাদুল অসুস্থ হয়ে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় তাকে আদালতে হাজির করা হয়নি।

রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও দিনাজপুর ডিবির ওসি জাফর ইমাম। এ সময় আদালত প্রাঙ্গণসহ আশপাশের এলাকায় উৎসুক মানুষের ভীড় ছিল লক্ষণীয়। সাপ্তাহিক ছুটি ও আইনজীবী সমিতির নির্বাচন উপলক্ষ্যে আদালত বন্ধ থাকায় বিশেষ বেঞ্চে এ শুনানী অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে সরকারি বাসভবনের ভেন্টিলেটর ভেঙে ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলীকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে দুই দুর্বৃত্ত।

বৃহস্পতিবার ভোরে ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবাকে প্রথমে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখান থেকে ইউএনওকে রংপুর কমিউনিটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে নেয়া হয়।

তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, হাতুড়ির আঘাতে ওয়াহিদা খানমের মাথার খুলি ভেঙে ভেতরে ঢুকে গেছে। এতে তার ডান হাত ও পা অচল হয়ে পড়েছে। এখনই অপারেশন করা সম্ভব হচ্ছে না। # কাশেম


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অনুসন্ধান

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:২৮ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১৩ অপরাহ্ণ
  • ৪:০০ অপরাহ্ণ
  • ৫:৪০ অপরাহ্ণ
  • ৬:৫৬ অপরাহ্ণ
  • ৬:৪৩ পূর্বাহ্ণ

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপি এখন লিপসার্ভিসের দলে পরিণত হয়েছে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন? Live

  • হ্যাঁ
    33% 2 / 6
  • না
    66% 4 / 6