সর্বশেষঃ
আজ আন্তর্জাতিক কাস্টমস দিবস উদযাপন করছে বাংলাদেশ ফেরির ফগ লাইট ক্রয়ে অর্থ আত্মসাৎ:বিআইডব্লিউটিসির সাবেক ম্যানেজারের জামিন আবেদন খারিজ জিআইএস ম্যাপ অনুযায়ী নগরীর প্রত্যেকটি খালই‌ উদ্ধার করা হবে: ডিএনসিসির মেয়র ৩০ জুনের মধ্যে নগরীর ঝুলন্ত তার অপসারণ করতে হবে: ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম রাজধানীর সকল খাল দখলমুক্ত করা হবে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী চট্টগ্রামের ধানের কুড়া মিশিয়ে হলুদ, মরিচ, ধনিয়ার মসলা তৈরির কারখানায় র‌্যাবের অভিযান সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দুই সপ্তাহ বন্ধ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী আবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধসহ বিধি-নিষেধ জারি জীবন বীমার এমডি জহুরুল হকসহ ২ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা জেলা প্রশাসক জানেন তার অফিসে কোথায় দুর্নীতি হয়: দুদক চেয়ারম্যান
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৫৩ পূর্বাহ্ন

কুষ্টিয়ায় সরকারি হাসপাতালে করোনার জাল সনদ, টেকনোলজিস্ট মাহফুজুর গ্রেফতার

দূরবীণ নিউজ ডেস্ক :
কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট মাহফুজুর রহমান নমুনা না করেই করোনা নেগেটিভের সনদ দিয়ে আসছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে নিজের অফিসে বসে সুকৌশলে এ কাজটি করে আসছিলেন। বুধবার বিকেলে মিরপুর থানায় বাদি হয়ে মামলা করেন সিভিল সার্জন।

সনদ দেয়ার বিনিময়ে তিনি মোটা অঙ্কের আর্থিক সুবিধা নিতেন। মাহফুজুর রহমান কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের ফরমেট ব্যবহার করে নিজের নামে সিল তৈরি করে এসব সনদ দিয়ে আসছিলেন।

বুধবার ( ২৬ আগস্ট) দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অভিযান চালায় কুষ্টিয়া গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ সময় তার কক্ষ থেকে জাল সনদপত্রসহ কম্পিউটারের হার্ড ডিস্ক ও পেন ড্রাইভ জব্দসহ মাহফুজুরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ ব্যাপারে মিরপুর থানায় মামলা করেছেন সিভিল সার্জন ডঃ এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম।

ডিবি সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারেন মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন কর্মচারী ভুয়া ও জাল করোনা সনদ বিক্রি করে আসছেন। এ সংবাদের ভিত্তিতের ডিবির অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুল হক, ইন্সপেক্টর এসএম আশরাফুল আলমসহ গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল বুধবার দুপুর দেড়টায় অভিযান চালায়।

এ সময় মিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ জেসমিন আক্তারসহ মিরপুর থানা পুলিশের একটি দলও উপস্থিত ছিল। পরে সেখানে কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডাঃ আনোয়ারুল ইসলাম উপস্থিত হন। সিভিল সার্জনের উপস্থিতিতে মাহফুজুর গ্রেফতার করা হয়। জব্দ করা হয় বেশ কিছু আলামত।

ডিসির ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, ‘মাহফুজুর রহমান বেশ কিছু দিন ধরে সুকৌশলে প্রতারণা করে আসছিলেন। প্রাথমিকভাবে আমরা তার প্রমাণ পেয়েছি। শুধু এ জেলার মানুষেরই নয় বিভিন্ন জেলার লোকজনকে তিনি করোনার নেগিটিভ সনদ দিয়ে আসছিলেন। আমরা আলামত জব্দ করেছি। তার সাথে আর কারা কারা জড়িত তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অন্য কেউ জড়িত আছে প্রমাণ পেলে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।’

সিভিল সার্জন ডাঃ আনোয়ারুল ইসলাম জানান, ‘দীর্ঘদিন ধরে টেকনোলজিষ্ট মাহফুজুর রহমান মেডিকেল কলেজের ফরম ব্যবহার করে নিজের নামে সিল তৈরি করে এসব সনদ দিয়ে আসছিলেন। নেগেটিভ সনদ দিলেও তিনি এসব ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করতেন না।

অর্থের বিনিময়ে এসব কাজ করে আসছিলেন মাহফুজুর। তার কম্পিউটার থেকে এ রকম ১৩ জনের জন্য প্রস্তুতকৃত সনদ জব্দ করা হয়েছে। এ সময় হার্ডডিস্ক, পেন ড্রাইভ জব্ধ করা হয়। # কাশেম


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অনুসন্ধান

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:২৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:১৪ অপরাহ্ণ
  • ৪:০৩ অপরাহ্ণ
  • ৫:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ৭:০০ অপরাহ্ণ
  • ৬:৪১ পূর্বাহ্ণ

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপি এখন লিপসার্ভিসের দলে পরিণত হয়েছে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন? Live

  • হ্যাঁ
    33% 2 / 6
  • না
    66% 4 / 6