শিরোনাম :
‘জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে প্রথমবারের মতো চার বাংলাদেশী নারী বিচারকের অংশগ্রহণ’ ড্যাপ বাস্তবায়নে রিহ্যাব ও বিএলডিএ-এর সুপারিশ পর্যালোচনায় ওয়ার্কিং কমিটি গঠন: এলজিআরডি মন্ত্রী দেশের ইমেজ সবার আগে : প্রধান বিচারপতি সোহরাওয়ার্দীর সাবেক পরিচালক ডা. উত্তমের লাইসেন্স বাতিল ও সরকারি টাকা ফেরত চেয়ে আইনী নোটিশ ৭ মার্চের ভাষণ গেরিলা যুদ্ধের প্রস্ততি, রাজনীতির নির্দেশনার দলিল: দুদক চেয়ারম্যান ৭ই মার্চ বাঙালি জাতির জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণঃ ডিএসসিসি মেয়র নৃত্যশিল্পী ইভানের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ২৪ মার্চ ‘৭ দিনের মধ্যে বিটিআরসিকে দুদক কর্মকর্তার ‘ঘুষ দাবির’ কললিস্ট দাখিলের নির্দেশ’ কুড়িগ্রামের সাবেক ডিসিসহ সাংবাদিক নির্যাতনে জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা চলবে: সুপ্রমিকোর্ট প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে, পার্লামেন্ট মেম্বার্স ক্লাবকে হারিয়ে ডিএনসিসির জয় লাভ ঐতিহাসিক ৭ মার্চ ও ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে ডিএসসিসিতে নানা আয়োজন দেশে করোনায় আরো ১০ জনের মৃত্যু এবং নতুন শনাক্ত ৫৪০ হুজির অপারেশন শাখার প্রধানসহ ৩ আসামি ৩ দিনের রিমান্ডে প্রয়োজনে জমি অধিগ্রহণ করে প্রতিটি ওয়ার্ডে খেলার মাঠ করা হবেঃ মেয়র তাপস স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ডিআরইউ’র মাসব্যাপী কর্মসূচি সাংবাদিক শাওনের রোগমুক্তির জন্য দোয়া কামনা ৭ মার্চ সারাদেশে ৬৬০ থানায় একযোগে পুলিশের অনুষ্ঠান থাকবে: আইজিপি শিগগিরই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধন হচ্ছে: আইনমন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়া আইনমন্ত্রীর উপস্থিতিতে ২ মেয়র প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ এবার মৃত ব্যক্তির ব্যাংকের টাকার পাওনাদার নিধারণী মামলা আপিল বিভাগ
সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৯:২৪ পূর্বাহ্ন

একুশের চেতনায় দুর্নীতিমুক্ত সুশাসিত দেশ গড়ার আহ্বান টিআইবির

ফাইল ছবি

দূরবীণ নিউজ প্রতিবেদক:
একুশের চেতনা ধারণ করে দুর্নীতিমুক্ত সুশাসিত স্বদেশ গড়ার আহ্বান জানিয়েছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)।

শনিবার (২০ ফেব্রয়ারি)এক বিবৃতিতে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান এই আহবান জানিয়েছেন। তিনি একইসঙ্গে বলেছেন,দুর্নীতিমুক্ত, বৈষম্যহীন, অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক দেশ মহান একুশের চেতনার কেন্দ্রীয় উপাদান। একুশ সমস্ত অন্যায়, অবিচার, বৈষম্য ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর প্রেরণা যোগায়।

বিবৃতিতে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক আরো বলেন, ‘আমাদের গৌরবোজ্জ্বল ভাষা আন্দোলনের একুশ যেমন আবেগের, তেমনি সংগ্রাম ও দ্রোহের। একুশের পথ বেয়েই বাঙালি বারবার অন্যায়, অবিচার আর শোষণের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে, ছিনিয়ে এনেছে স্বাধীনতার সূর্যকে। হার না মানা দৃঢ়তায় অশুভকে রুখে দেওয়ার প্রেরণা আমরা একুশ থেকেই পাই।

তিনি বলেন, যেকোনো অন্যায়, নিপীড়ন ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে এবং ন্যায়ের পক্ষে সমন্বিত প্রতিবাদের প্রেরণা হোক একুশে ফেব্রুয়ারি। একইসাথে একুশ হোক দুর্নীতি প্রতিরোধে অনন্য প্রেরণার উৎস। কারণ দুর্নীতি একুশের চেতনার পরিপন্থী। তাই এই একুশের চেতনা ধারণ করেই দুর্নীতিকে রুখতে হবে, সকল প্রকার বৈষম্য থেকে মুক্তি লাভের সংগ্রাম চালিয়ে যেতে হবে।”

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, ‘দুর্নীতিবিরোধী আন্দোলন আর একুশের চেতনা অবিচ্ছেদ্য অংশ।’একুশের যে চেতনার চূড়ান্ত বহিঃপ্রকাশে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমাদের স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছিলো, দুর্নীতির জগদ্দল পাথর সেই অর্জন ভূলুন্ঠিত করছে।

তিনি বলেন, বৈষম্যহীন, শোষণহীন, ভয়মুক্ত সমাজ বিনির্মাণের যে শপথ মহান একুশের প্রধান চেতনা, সর্বগ্রাসী দুর্নীতির ব্যাপক বিস্তার আমাদের সেই শপথ বিনষ্ট করছে। সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে শূন্য সহনশীলতা’র যে প্রত্যয় ঘোষিত হয়েছে, ছোটখাট দুর্নীতি ও কিছু চুনোপুঁটি টানাহেঁচড়ার বাইরে বড় দুর্নীতি ও রাঘব বোয়ালদের বিরুদ্ধে কঠোরব্যবস্থা না নেয়ায় সেই প্রত্যয়ও কেবল কাগুজে ঘোষণাই রয়ে গেছে।

দুর্নীতির ধারণা সূচকে দীর্ঘ এক দশক বাংলাদেশের প্রায় একই অবস্থানে আটকে থাকা এবং দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে আমাদের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন অবস্থান সেটিই যেন প্রমাণ করে। তাই ঘোষিত প্রতিশ্রুতির পাশাপাশি দুর্নীতির বিরুদ্ধে সর্বব্যাপী কঠোরব্যবস্থা গ্রহণই একুশের চেতনার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ হবে।”

ড. জামান বলেন, “এটা খুবই উদ্বেগের বিষয় যে সরকার ও প্রশাসনযন্ত্রে একরকম ‘অস্বীকারের সংস্কৃতি’ বা ‘ডিনায়াল সিনড্রোম’ জেঁকে বসেছে। যে কোনো ধরনের দুর্নীতি, অনিয়ম আর অভিযোগ উঠলেই সেটিকে একেবারে বাতিল বা অস্বীকার কিংবা ঢালাওভাবে ষড়যন্ত্রের বাতাবরণ দেওয়ার চেষ্টা দুর্নীতির বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ও রাষ্ট্রীয় প্রতিশ্রুতিসমূহকে প্রতিনিয়ত প্রশ্নের মুখে ফেলছে এবং দুর্নীতিসহায়ক পরিবেশ তৈরিতে ভূমিকা রাখছে।

তিনি বলেন,এহেন অবস্থা থেকে বেরিয়ে এসে প্রশ্নবিদ্ধ যে কোনো বিষয়ে আইন ও বিধি বিধান মেনে সরকার সত্য প্রকাশের সৎসাহস দেখাবে এটাই প্রত্যাশা, যা সামগ্রিকভাবে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বিতর্ক এড়িয়ে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানগুলোকে শক্তিশালী করবে, অর্থবহ করবে গণতন্ত্রকে। অন্যথায় যে চেতনার ভিত্তিতে আমাদের মহান ভাষাশহীদ ও মুক্তিযোদ্ধারা অকাতরে জীবন দান করে গেছেন তা অনর্থক হয়ে যাবে।/প্রেস বিজ্ঞপ্তি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


অনুসন্ধান

করোনা আপডেট

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৫৫০,৩৩০
সুস্থ
৫০৩,০০৩
মৃত্যু
৮,৪৬২
সূত্র: আইইডিসিআর

বিশ্বে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

.