সর্বশেষঃ
মরহুম মেয়র আনিসুল হকের সম্মানে বিশেষ দোয়া ডিএনসিসির ৫০ তলা আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র নির্মাণের নকশা প্রণয়নে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সাড়া মিলছে শহর বাঁচাতে অ্যাট সোর্সে পয়ঃবর্জ্য ব্যবস্থাপনার বিকল্প নেই: মেয়র আতিকুল ইসলাম ১৩ বছরে ওয়াসার তাকসিম প্রায় ৬ কোটি টাকা নেওয়ার প্রতিবেদন হাইকোর্টে ইসলামী ব্যাংকের হাজার হাজার কোটি টাকা ঋণের নামে লোপাট নিয়ে রিটের পরামর্শ হাইকোর্টের হাসপাতালের বিষাক্ত চিকিৎসা বর্জ্যকে আলাদা করতে মেয়র শেখ তাপসের নির্দেশ ডিআরইউ’র নির্বাচনে সভাপতি নোমানী সম্পাদক সোহেল গুলিস্তান রেড জোনে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় ৫ দোকানিকে জেল- জরিমানা ডিএসসিসি’র মেয়র হানিফের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকীতে নানা আয়োজন দুর্নীতি ভয়াবহ ক্যান্সার, এটি রাষ্ট্রের ভিত্তি দুর্বল করে : প্রধান বিচারপতি
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৪১ অপরাহ্ন

আদালতে নিজের স্ত্রী ও সন্তান হত্যার দায় স্বীকার রুবেলের

ফাইল ছবি

দূরবীণ নিউজ প্রতিবেদক:
রাজধানীর কড়াইল বস্তিতে নিজের স্ত্রী হাসি খাতুনের (২৪) ও তার ৫ বছরের সন্তান (ছেলে) নীরবকে হত্যার দায় স্বীকার করেছে ঘাতক রুবেল। রোববার (৪ এপ্রিল) ঢাকা মহানগর হাকিম দেবব্রত বিশ্বাসের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছে রুবেল।

রোববার বিকেলে হাসি খাতুন ও তার ছেলে নীরব হত্যা মামলায় ঘাতক রুবেলকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। পরে রুবেল স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে রাজি হলে, তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন ওই আদালতের বিচারক দেবব্রত বিশ্বাস। এরপর আদালত রুবেলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত শনিবার (৩ এপ্রিল) রাজধানীর তুরাগ থানাধীন কামার পাড়া কাঁচামালের আড়তের সামনে থেকে র‌্যাব-১ এর সদস্যরা রুবেলকে গ্রেফতার করেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, সাত বছর আগে হাসি খাতুনের (২৪) সঙ্গে বিয়ে হয় রুবেলের। ৫ বছর বয়সী ছেলে নীরবকে নিয়ে রুবেল ও হাসি কড়াইল বস্তিতে বাস করতেন। ৫ মাস আগে তারা ঢাকা ছেড়ে কুমিল্লার বাড়িতে চলে যান। কিন্তু শ্বশুরবাড়িতে অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে ছেলে নীরবকে নিয়ে ১৯ মার্চ ঢাকায় চলে আসেন হাসি খাতুন।

২২ মার্চ রুবেলও ঢাকায় আসেন স্ত্রী ও ছেলেকে ফিরিয়ে নিতে। এ কথা শুনে হাসি ছেলেকে নিয়ে বাসা থেকে চলে যান। হাসির মা ও ভাই-বোন রুবেলকে বুঝিয়ে বাসায় নিয়ে আসেন। ২৩ মার্চ রাত ২টা পর্যন্ত হাসি ও রুবেলের মধ্যে সাংসারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া চলে। হাসির বোন বৈশাখীর সঙ্গে ঘুমিয়ে ছিল নীরব।

২৪ মার্চ ভোর ৪টার দিকে রুবেল বড় শ্যালিকা বৈশাখীকে ডেকে জানান, হাসি অন্য ছেলের সঙ্গে পালিয়ে গেছেন। এরপর নীরবকে ঘুম থেকে তুলে নিয়ে যান রুবেল।

রুবেল বৈশাখীকে জানান, সে হাসিকে খুঁজতে যাচ্ছে। আধা ঘণ্টা পর রুবেল বাসায় এসে বৈশাখীর কাছে ২০০ টাকা চায়। নীরবকে নিয়ে কুমিল্লায় চলে যাবে বলে জানান রুবেল। নীরব কোথায়, বৈশাখী তা জানতে চাইলে রুবেল বলেন, ‘ওকে চায়ের দোকানে বসিয়ে রেখে এসেছি।’ বৈশাখীর কাছে টাকা না পেয়ে শ্যালক মেহেদীর কাছ থেকে ৫০০ টাকা নিয়ে চলে যান রুবেল।

সকাল সাড়ে ৮টার দিকে হাসির বাবা মো. হাতেম ও বৈশাখীর কাছে ফোন দিয়ে রুবেল জানতে চান, হাসিকে খুঁজে পাওয়া গেছে কিনা? হাসিকে পাওয়া যায়নি বলে জানান হাতেম। তখন রুবেল বলেন, ‘বাসার পেছনে বিলের মধ্যে খোঁজ করলে হাসির লাশ পেয়ে যাবেন।’

নীরব কোথায় জানতে চাইলে রুবেল বলেন, ‘তাকেও মেরে ফেলেছি। মায়ের পাশে ওর লাশ পাবেন।’ হাসির পরিবারের লোকজন ঝিলে হাসি ও তার ছেলের লাশ দেখতে পান। পরে পুলিশ তাদের লাশ উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় রুবেলকে আসামি করে ২৪ মার্চ বনানী থানায় মামলাটি দায়ের করেন হাসির বাবা।/


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


অনুসন্ধান

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৫:১০ পূর্বাহ্ণ
  • ১১:৫১ পূর্বাহ্ণ
  • ৩:৩৫ অপরাহ্ণ
  • ৫:১৪ অপরাহ্ণ
  • ৬:৩২ অপরাহ্ণ
  • ৬:২৪ পূর্বাহ্ণ

অনলাইন জরিপ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বিএনপি এখন লিপসার্ভিসের দলে পরিণত হয়েছে।’ আপনিও কি তাই মনে করেন? Live

  • হ্যাঁ
    33% 3 / 9
  • না
    66% 6 / 9